ফিফা (FIFA) নিয়ে সংক্ষিপ্ত বর্ণনা।

FIFA প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল 21 মে, 1904-এ সাতটি দেশ নিয়ে গঠিত। সেসব দেশের নাম হলো- বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, সুইডেন এবং সুইজারল্যান্ড।

20 শতকের শুরুর পরপরই আন্তর্জাতিক গেমের সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে ফিফার জন্ম হয়েছিল। ইউরোপের সকার নেতারা অনুভব করেছিলেন যে এই ধরনের বর্ধিত প্রতিযোগিতার জন্য একটি গভর্নিং বডির প্রয়োজন। যার পরিপেক্ষিতে রবার্ট গুয়েরিনের চেষ্টায় সাতটি রাষ্ট্রের সদস্য প্যারিসে একত্রিত হয়।এবং ফিফা (FIFA) গঠন করে।

ফিফার কারণে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলায় পরিণত হয়েছে। ফিফা ফেডারেশনের 2006 “বিগ কাউন্ট” অনুসারে, ফুটবল খেলায় 150 মিলিয়নেরও বেশি নিবন্ধিত ক্রীড়াবিদ খেলেছে।

বর্তমানে ফুটবল খেলার জনপ্রিয়তা এবং এর স্বচ্ছতা ধরে রাখার জন্য ফিফা খেলার সমস্ত দিক নিয়ন্ত্রণ করে। যেমন- খেলার নিয়ম নিয়ন্ত্রণ করা, আন্তর্জাতিকভাবে খেলোয়াড়দের স্থানান্তরের তত্ত্বাবধান করা, ফিফা বিশ্বকাপের মতো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা, রেফারি, কোচিং এবং ক্রীড়া ওষুধের জন্য মান প্রতিষ্ঠা করা এবং ফুটবলকে উৎসাহিত করা।

বর্তমানে ফিফা ফুটবল খেলা নিয়ে মানুষের মাঝে ভালোবাসা ধরে রাখার ক্ষেত্রে নিয়মঅনুসারে বিশ্বকাপ, মহিলা বিশ্বকাপ, অনূর্ধ্ব-20 বিশ্বকাপ, অনূর্ধ্ব-20 মহিলা বিশ্বকাপ, অনূর্ধ্ব-17 বিশ্বকাপ, অনূর্ধ্ব-17 মহিলা বিশ্বকাপ, ফিফা, বিচ সকার বিশ্বকাপ, ফুটসাল বিশ্বকাপ এবং অলিম্পিক ফুটবল টুর্নামেন্টের তত্ত্বাবধান করে।

Leave a Reply